কাশ্মীর ইস্যুতে বিশৃঙ্খলার চেষ্টা হলে কঠোর ব্যবস্থা: র‌্যাব ডিজি

অথর
নিজস্ব প্রতিবেদক   বাংলাদেশ
প্রকাশিত :১০ আগস্ট ২০১৯, ৩:০৫ অপরাহ্ণ | নিউজটি পড়া হয়েছে : 118 বার
কাশ্মীর ইস্যুতে বিশৃঙ্খলার চেষ্টা হলে কঠোর ব্যবস্থা: র‌্যাব ডিজি কাশ্মীর ইস্যুতে বিশৃঙ্খলার চেষ্টা হলে কঠোর ব্যবস্থা: র‌্যাব ডিজি

কাশ্মীর ইস্যু নিয়ে কেউ দেশে বিশৃঙ্খলার চেষ্টা করলে তাদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে জানিয়েছেন র‌্যাবের মহাপরিচালক (ডিজি) বেনজীর আহমেদ।

তিনি বলেন, কাশ্মীর ভারতের অভ্যন্তরীণ বিষয়। তাদের নিজস্ব বিষয়ে আমাদের কোনো মন্তব্য নেই। আশা করব, ভারতের অভ্যন্তরীণ বিষয়টি নিয়ে কেউ দেশে পানি ঘোলা করার চেষ্টা করবেন না।

রাজধানীর কারওয়ান বাজারে র‌্যাব মিডিয়া সেন্টারে ঈদে নিরাপত্তা ব্যবস্থা নিয়ে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে শুক্রবার তিনি এ সতর্কবার্তা দেন।

র‌্যাব ডিজি বলেন, দেশে আল্ট্রা ইসলামিস্টের সংখ্যা বেশি নয়। যারা রয়েছে তারা ২৪ ঘণ্টা নজরদারিতে রয়েছে। যেহেতু কাশ্মীর বাংলাদেশের সমস্যা বা বিষয় নয়, তাই সেটি নিয়ে দেশে অনাকাঙ্ক্ষিত, অযাচিত ঝামেলা সৃষ্টির চেষ্টা করলে কোনো ছাড় দেয়া হবে না।

ঈদে নিরাপত্তার বিষয়ে বেনজীর আহমেদ বলেন, যারা গাড়ি নিয়ে নিজ এলাকায় ঈদ করতে যাবেন, তারা যেন ‘জয় রাইডে’ বের না হন। সড়কপথে এবার ধীরগতি আছে। ধীরগতি হলে দুর্ঘটনা কমে যায়। কিন্তু আমরা দেখি, ঈদ-পরবর্তী দিনে দুর্ঘটনা বেড়ে যায়। এতে চালকদের তো বড় ভূমিকা আছেই, যাত্রীদেরও রয়েছে। নৌপথে যাত্রীদের বেশি সতর্ক থাকতে হবে। কেউ ঝুঁকি নেবেন না। যারা গ্রামে গাড়ি নিয়ে ঈদ করতে যাবেন, দয়া করে ঈদের দিন বা ঈদের পরদিন জয় রাইডে বের হবেন না। জয় রাইডে বের হয়ে প্রাণ হারাবেন না।

দেশের ৪২টি স্থান দুর্ঘটনাপ্রবণ, সেসব স্থানে র‌্যাব নিরাপত্তা ব্যবস্থা গ্রহণ করেছে বলে জানিয়েছেন বেনজীর আহমেদ।

তিনি বলেন, দেশে ১৮ হাজার গরুর হাট বসেছে। সাড়ে পাঁচশ হাট খুবই গুরুত্বপূর্ণ। হাটগুলোতে এক কোটির বেশি গরুর আমদানি হয়। বিক্রেতারা যাতে নির্বিঘ্নে হাটগুলো গুরু নিতে পারেন এবং ক্রেতারা কোনো ঝামেলা ছাড়াই গরুর কিনতে পারেন, হাসিলের নির্ধারিত অর্থের বাইরে অর্থ আদায় না হয় সেসব বিষয়ে র‌্যাবের নজরদারি রয়েছে।

তিনি বলেন, ঢাকায় পাঁচ লাখের মতো পশু কোরবানি হয়। সেখানে যদি ২০টি প্রতিষ্ঠানকে ঠিক করে দেয়া হয়, আর তারা যদি তিন দিনব্যাপী কোরবানির ব্যবস্থা করে, তাহলে নির্ধারিত স্থানে ঢাকার বাইরেও কোরবানি দেয়া যেতে পারে। এতে পশুর চামড়া, হাড়- সবই কাজে লাগানো যাবে। এটা করলে সারা শহর অস্বাস্থ্যকর হওয়া থেকে নিস্তার পাবে।

নগরবাসীকে নির্ধারিত স্থানে কোরবানি দেয়ার আহ্বান জানান র‌্যাব মহাপরিচালক।

ডেঙ্গু নিয়ে আতঙ্কিত হওয়ার কিছু নেই জানিয়ে র‌্যাব ডিজি বলেন, নির্মাণাধীন জায়গায় যাতে পানি জমে না থাকে সে বিষয়টি খেয়াল রাখতে হবে। নিজের কাজটা দায়িত্ব নিয়ে পালন করলেই এ সমস্যা থেকে মুক্ত হওয়া যাবে।

র‌্যাবের প্রতিটি ব্যাটালিয়নে ডেঙ্গু প্রিভেনশন অফিসার নিয়োগ করা হয়েছে জানিয়ে তিনি বলেন, প্রতিটি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান, সরকারি-বেসরকারি অফিসসহ বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে এ রকম একজনকে নিয়োগ দেয়া উচিত। যারা ঈদ করতে গ্রামে যাচ্ছেন তারা যেন ডেঙ্গু আক্রান্ত না হন, সে ব্যাপারে সতর্ক থাকতে হবে।

র‌্যাবের কর্মকর্তা হাসিনুর রহমান দীর্ঘদিন ধরে নিখোঁজ, তাকে খুঁজে না পাওয়াটা ব্যর্থতা কি না, এ বিষয়ে জানতে চাইলে বেনজীর আহমেদ বলেন, অনেককে খুঁজে পাওয়া যায় না। খুঁজে না পাওয়াটা শুধু এ দেশের সমস্যা না। অনেক দেশেই লোক খুঁজে পাওয়া যায় না। আর খুঁজে না পেলেই কারও ব্যর্থতা হয় না। তবে র‌্যাব বিষয়টি নিয়ে কাজ করছে। র‌্যাবের পক্ষ থকে পরিবারের সঙ্গে যোগাযোগ রয়েছে। এ বিষয়ে কারও কাছে কোনো তথ্য থাকলে তা র‌্যাবকে জানাতে অনুরোধ করছি।

হাসিনুর রহমান র‌্যাব-৫ ও র‌্যাব-৭-এর সাবেক অধিনায়ক। তিনি বিজিবিতেও বেশ কিছু দিন দায়িত্ব পালন করেন। ডিবি পরিচয়ে পল্লবীর বাসা থেকে হাসিনুর রহমানকে তুলে নিয়ে যায় অজ্ঞাত ব্যক্তিরা। এর পর থেকেই তিনি নিখোঁজ।

সংবাদটি শেয়ার করুনঃ
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

শেয়ার করে আমাদের সঙ্গে থাকুন, আপনার অশুভ মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ী নয়।


Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *